বিনা পুঁজিতে ব্যবসার সুযোগ দিচ্ছেন ইউসুফ


বেকারত্ব দেশের জন্য অভিশাপ। বেকারত্ব বোঝাও বটে। দিনে দিনে দেশে বেকারত্বের হার বেড়েই চলেছে। দেশের বোঝা কমাতে নিজের মত করে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবু ইউসুফ। তিনি আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী।

২০১৯ সালের ২ নভেম্বর উদ্যোক্তা হওয়ার লক্ষ্যে খুলেছেন নিজস্ব প্রতিষ্ঠান ‘হালাল শপিং জোন।’ প্রথম দিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন পোশাক অর্ডার নিতেন। বর্তমানে ছেলেদের নিত্য প্রয়োজনীয় পোশাক পৌছে দিচ্ছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। উদ্যোক্তা হওয়ার পাশাপাশি বেকারত্ব দূরীকরণে গ্রহণ করেছেন ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ। বিনা পুঁজিতে ব্যবসা করার সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছেন শিক্ষার্থীদের মাঝে। ইতোমধ্যে ৩৫ জন শিক্ষার্থী এ সুযোগ পেয়েছেন। আরো নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউসুফ।

বর্তমানে তাঁর অধীন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ ৩টি সরকারী কলেজ ও ২০টি জেলার অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীরা যুক্ত হয়েছে ইউসুফের সাথে। তারা খুঁজে পেয়েছে আলোর দিশা। ইতোমধ্যে তারা বিনা পুঁজিতে ব্যবসা করা শুরু করেছেন।

এ ব্যাপারে আবু ইউসুফ জানায়, ‘২০১৯ সালের ২০ জুন এক প্রতিবেদন অনুযায়ী বর্তমান দেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা প্রায় ২৬ লক্ষ ৭৭ হাজার। সেই তুলনায় তাদের কর্মক্ষেত্র খুবই সীমিত। তাই বেকারত্ব দূরীকরণে উদ্যোক্তার কোন বিকল্প নেই। আমি সেই কাজটাই করছি। এই কাজটি চলমান থাকবে পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শাখা বর্ধিত করা হবে।’

লেখক: আজাহার ইসলাম
শিক্ষার্থী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া

 193 Views

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

0
    0
    Your Bag
    Your cart is emptyReturn to Shop
    Scroll to Top